নেত্রকোণায় প্যারাসিটামল গ্ৰুপের ঔষধ না পাওয়ায় বিপাকে সাধারণ মানুষ

প্রকাশিত: ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

নেত্রকোণা জেলা শহরসহ বিভিন্ন উপজেলার বাজারে ফার্মেসিতে প্যারাসিটামল গ্ৰুপের ঔষধ না পাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

করোনা চলাকালীন সময়ে অতিরিক্ত রোগী শনাক্ত হওয়ায় একদিকে যেমন বাড়ছে মহামারীর ঝুঁকি অন্যদিকে বাড়ছে সাধারণ জ্বর সর্দি কাশির প্রকোপ। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই প্যারাসিটামল গ্ৰুপের ঔষধের চাহিদা বাড়ছে। গত দুই সপ্তাহে জেলার সীমান্তবর্তী দুর্গাপুর, কলমাকান্দা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জ্বর, সর্দি ও কাশির প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে।এসব রোগ বেড়ে গেছে হাওর অঞ্চল মোহনগঞ্জ ও খালিয়াজুরী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়।
ফলে এসব রোগের ঔষধের চাহিদা পূরণ করতে হিমশিম খাচ্ছে ফার্মেসিগুলো। ঔষধ ব্যবসায়ীরা বলছেন, হঠাৎ করে করোনার পাশাপাশি সাধারণ জ্বর, সর্দি ও কাশি বেড়ে যাওয়ায় অতিরিক্ত ঔষধের চাহিদা পূরণ করতে পারছে না কোম্পানিগুলো।
ফলে এলাকার রোগীরা বিপাকে পড়েছেন।
আবার অনেক রোগীরা বলছেন , ঔষধ বিশেষ করে প্যারাসিটামল গ্ৰুপের ঔষধ বাজারে কম থাকায় এ সুযোগে কিছু ব্যবসায়ী অতিরিক্ত দাম আদায় করে মুনাফা হাতিয়ে নিচ্ছে। বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে সচেতন মহলের দাবি। রোগীদের দুর্দিনে ঔষধ মজুদ করে অতিরিক্ত দাম লুটে নেয়ার ঘটনা অতীতে জেলায় ঘটেছে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ভুক্তভোগী জানিয়েছেন।
নেত্রকোনা জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সেলিম মিয়া জানান, জেলার বিভিন্ন স্থানে করোনা ও জ্বর, সর্দি, কাশির প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এসব রোগের ঔষধের চাহিদা বাড়ছে। অতিরিক্ত দামে ঔষধ বিক্রি বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।