মদনে প্রভাবশালীর দখলে সরকারি হালট,এলাকাবাসীর কষ্টের সীমা নেই

প্রকাশিত: ৫:০০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২১

হাবিবুর রহমান, মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধিঃ

 নেত্রকোনার মদন ইউনিয়নের মদন দক্ষিণ পাড়া গ্রামের সরকারি হালটে যাতায়াতের রাস্তায় প্রভাবশালী মৃত শামসুজ্জোহার ছেলে লিটনের বাধাঁর হাত থেকে যাতায়াতের রাস্তা সরকারী হালট মুক্ত করণের অভিযোগ উঠেছে।
আজ ৮ সেপ্টেম্বর সরজমিনে  গিয়ে জানা যায়,  মৃত শামসুজ্জোহার ছেলে লিটন ( ৫০) ও মৃত কলিম উদ্দিনের  ছেলে রোকন ( ৪০) তাদের দুজনের বাড়ির পাশে দিয়ে সরকারি একটি   হালট  বয়ে যায়,এই হালটের বেশি অংশ দখল করে নেয় মৃত শামসুজ্জোহার ছেলে লিটন।
 উক্ত হালটের মাঝে মৃত শামসুজ্জোহার ছেলে   লিটনের গাছ লাগানো  থাকায় প্রতিবেশী মৃত  কলিম উদ্দিনের ছেলে রোকন  ও  এলাকাবাসীর  যানবাহন নিয়ে   যাতায়াতের খুবই কষ্ট হচ্ছে।
এমতাবস্থা এলাকার  গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ আমিন দিয়ে  একাধিক বার মেপে হালটটি নির্ধারণ করেন।একাধিকবার সালিশের মাধ্যমে বিষয়টির সমাধান করার চেষ্টা ও করেন গ্রামের মাতব্বররা।
সালিশের মাঝে বলেন, মৃত শামসুজ্জোহার ছেলে লিটন (৫০)  গাছকেটে মুক্ত করে দেবেন সরকারী হালটটি,কিন্তুু  লিটন  গাছ না কাঁটায়, প্রতিপক্ষ রোকন গাছ কাটতে গেলে বাধাঁ দেন প্রভাবশালী লিটন(৫০)  ও থানায় অভিযোগ করেন, কলিম উদ্দিনের ছেলে রোকনের বিরুদ্ধে।
কষ্টের সহিত  লিটনের ছোট ভাই রিপন , ও বড় বোন লিপা আক্তার বলেন, আমার আপন ভাই  লিটন সে এমন জঘন্য ব্যক্তি  আমাদের বাড়ির  রাস্তা ও  আটক করে  দিয়েছে সে,  আমাদের এখন  যাতায়াত করতে হচ্ছে  অন্যের বাড়ির  উপর  দিয়ে, এনিয়ে হতে পারে দু’পক্ষের  মাঝে বড় ধরনের সংঘর্ষ।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে,  মৃত শামসুজ্জোহার ছেলে লিটন( ৫০) বলেন, আমিন দিয়ে যে মাপ হয়েছে তা ঠিক না,সঠিক মাপ হলে,  আমি সরকারি হালট ছেড়ে দিব।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুতগতিতে আমি  এর সমাধান করব।